পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ তৃণমূল কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তকে ইডির তলব

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি :সিবিআইয়ের পর এবার ইডির নজরে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ তৃণমূল কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্ত। প্রাথমিকে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় এবার বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তকে তলব করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্তরেট (ইডি)। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে বাপ্পাদিত্যকে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর আগে এই মামলায় বাপ্পাদিত্যর বাড়িতে তল্লাশি করে সিবিআই। ২৫ জানুয়ারি তৃণমূল কাউন্সিলর বাপ্পাদিত্যকে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদও করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

শনিবার শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামিন খারিজ করে দিয়েছে বিচারক। ফলে ফের তাঁকে জেল হেফাজতে থাকতে হবে পরবর্তী শুনানির দিন পর্যন্ত। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় বছরখানেক জেলবন্দি পার্থ চট্টোপাধ্যায়। নিজেকে বার বার নির্দোষ বলে দাবি করেছেন। গত শনিবার রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক দাবি করে সিবিআই। আড়ালে বসে গোটা দুর্নীতিতে মদত জুগিয়েছেন পার্থই, দাবি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার।

নিয়োগ দুর্নীতিতে তাঁর জামিনের শুনানিতে সিবিআই জানায়, ‘কাকে নিয়োগ করা হবে আর কাকে বাদ দেওয়া হবে গোটাই ছিল পরিকল্পনা। যাঁরা সঙ্গ দিতেন না তাঁদের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হত। বাড়িতে বৈঠক করে পদত্যাগ পর্যন্ত করানো হয়েছিল। দুর্নীতিতে পুরোপুরি যুক্ত ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। অপরাধ এমনভাবে করতেন যাতে ‘পিকচারে’ না থাকেন’।

অন্যদিকে, পার্থ চট্টোপাধ্যাযয়ের আইনজীবী বিপ্লব গোস্বামী অবশ্য সিবিআইয়ের অভিযোগ খারিজ করে দাবি, পার্থ যাঁদের সরিয়েছেন বলে সিবিআই দাবি করছে পরে তাঁদেরই বাগ কমিটির রিপোর্টে বা খোদ সিবিআইয়ের চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসাবে দেখানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘সিবিআইয়ের দ্বিতীয় চার্জশিটেও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম ছিল না’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *