ধরণার শেষ দিন নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল, শাহজাহান কাঁটায় বিদ্ধ তৃণমূল

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : মঙ্গলবারের বদলে আপাতত সোমবারই শেষ হচ্ছে রেড রোডের কর্মসূচি। ঘাসফুল শিবির সূত্রে এমনই খবর। কিন্তু হঠাৎ কেন সিদ্ধান্ত বদল?

জানুয়ারির শেষে কেন্দ্রকে রাজ্যের বকেয়া মেটানোর ডেডলাইন বেঁধে দিয়েছিলেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর বেঁধে দেওয়া সেই ডেডলাইন শেষ হয়েছে গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার। গত শুক্রবার রেড রোডে ধরনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর থেকে ধরনা চালিয়ে গিয়েছে দলের বিভিন্ন শাখা সংগঠন ও জেলা নেতৃত্ব। মঙ্গলবার ধরনা মঞ্চের দায়িত্বে ছিল হুগলির জেলা নেতৃত্ব। সোমবার আরামবাগে প্রশাসনিক সভা ছিল মমতার। স্বাভাবিকভাবেই সেখানে হাজির ছিল হুগলি জেলা নেতৃত্ব। সোমবার বর্ধমানের জেলা নেতৃত্ব ধরনার মঞ্চের দায়িত্ব সামলান। এর পরই কর্মসূচিতে ইতি টানছে তৃণমূল।

মঙ্গলবার সন্দেশখালি যাচ্ছে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল। তবে অসমর্থিত সূত্রে দাবি করা হয়েছে, সমস্ত ফোকাসড এখন সন্দেশখালি। শাসক শিবির চব্বিশের নির্বাচনের আগে সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাতে চাইছে সন্দেশখালি ইস্যুতে। তাই রেড রোডের ধরনা গুটিয়ে বিজেপিকে আটকাতে কোমর বেঁধে নামার প্রস্তুতি হিসেবে এই সিদ্ধান্ত।

সোমবার রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস সন্দেশখালি পরিদর্শনে যান। হাতের নাগালে পেয়ে শেখ শাহজাহান এবং তাঁর বাহিনীর হাতে লাঞ্জিতা, অত্যাচারিতা মহিলারা নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দেন। ‘ওরা যদি ফিরে আসে’ এমন আশঙ্কার কথা শুনিয়ে ভুক্তভোগী আক্রান্ত মহিলারা রাজ্যপালের হাতে রাখি পরিয়ে তাঁকে বলেন, ‘আপনারা চলে গেলে আমাদের যে অবস্থা হবে তা আরও ভয়ঙ্কর হবে। আমরা এরপর মুখ তুলে তাকাতে পারব না। ১৩ বছর ধরে যা অত্যাচার হচ্ছে, তার থেকেও ভয়ঙ্কর হবে’। নিজেদের সম্ভ্রম খোয়ানোর আতঙ্কে থাকা মহিলাদের এই সহজ সরল স্বীকারোক্তি প্রকাশ্যে আসায় অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসক শিবির। তৃণমূলের দাপুটে নেতা শেখ শাহজাহান সহ শিবু হাজরাদের গ্রেফতারি ইস্যু যেন গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে ঘাসফুল শিবিরের কাছে। তাই ‘ড্যামেজ কন্ট্রোলে’র জন্যেই তৃণমূলের সন্দেশখালি যাওয়ার পরিকল্পনা এবং ধরনার শেষ দিন নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *