বামেদের ধর্মঘটের দিনে রাজ্যপালের সন্দেশখালি সফর

Read Time:2 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : বামেদের ধর্মঘটে সোমবার সকালে শুনশান সন্দেশখালির রাস্তাঘাট।অন্যান্য দিনের তুলনায় দোকানপাট কম খুলেছে। লোকজন রাস্তায় বেরোচ্ছেনও কম। ফেরিঘাটে নৌকা চলছে, তবে যাত্রীর সংখ্যা প্রায় হাতেগোনা। এই আবহে আজ রাজ্য মহিলা কমিশন সকালেই সন্দেশখালিতে পৌঁছে গিয়েছে। রয়েছেন কমিশনের চেয়ারপার্সন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি এলাকা ঘুরে দেখেন এবং স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন। আবার এদিন সকালেই রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসও রওনা দিয়েছেন সন্দেশখালির পথে।

সন্দেশখালির কিছু অংশে এখনও ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। ফলে জমায়েত নিষিদ্ধ। তাই গত কয়েক দিনে গ্রামের রাস্তাঘাটে লোকজন কম বেরোচ্ছেন। এর ওপর সোমবার ধর্মঘট। এর জেরেই এলাকা শুনশান। সন্দেশখালিতে রওনা দেওয়ার আগে রাজ্যপাল বলেন, ‘আমি বাইরে ছিলাম। সন্দেশখালির খবর পেয়ে কাজ ফেলে এখানে চলে এসেছি। এখন নিজে সেখানে যাচ্ছি পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে’।

সাম্প্রতিক সময়ে সন্দেশখালিতে শেখ শাহজাহান, শিবপ্রসাদ সর্দার, উত্তম হাজরাদের গ্রেফতারির দাবিতে বিক্ষোভ চলছে। রবিবার ওই অঞ্চলে অশান্তি সহ একাধিক ধারায় বাঁশদ্রোণী থেকে গ্রেফতার করা হয় সন্দেশখালির প্রাক্তন বিধায়ক নিরাপদ সর্দারকে। চার ঘন্টা বাঁশদ্রোণী থানায় আটকে রাখার পর দুপুরে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। পরে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বসিরহাট থানায়। প্রতিবাদে থানার সামনে বিক্ষোভ দেখান বাম কর্মী-সমর্থকেরা। এরপর সন্ধ্যায় উত্তর ২৪ পরগনার জেলা কমিটির সন্দেশখালি ১ ও ২ নম্বর ব্লকে সোমবার ১২ ঘণ্টার জন্য ধর্মঘট ঘোষণা করেন। সিপিএমের দাবি, নিরাপদ-সহ যে সব ‘নির্দোষ’দের গ্রেফতার করছে পুলিশ, তাঁদের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *