Read Time:4 Minute

মর্যাদার ম্যাচে রেফারিং নিয়ে একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন হাবাস

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : আইএসএলে এই প্রথম ডার্বি জিততে না পারলেও তাঁর দলের পারফরম্যান্সে খুশি মোহনবাগান এসজি’র কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাস। শনিবার যুবভারতীতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে ২-২ ড্র করার পরে সাংবাদিকদের তা জানিয়ে দিলেন স্প্যানিশ কোচ। পাশাপাশি রেফারিং নিয়েও একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দিলেন সবুজ মেরুন হেডস্যার।

হাবাস সাংবাদিকদের জানান, ‘এই ম্যাচে আমাদের জেতার যথেষ্ট সম্ভাবনা ছিল। ইস্টবেঙ্গলকে পেনাল্টি দেওয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল না’। বক্সের ভিতরে নাওরেম মহেশকে ফাউল করে বসেন দীপক টাঙ্গরি। যদিও হাবাস রেফারিং নিয়ে একেবারেই সন্তুষ্ট নন। মর্যাদার লড়াইতে দু’বার পিছিয়ে গিয়েও ড্র করে মোহনবাগান এসজি। এই নিয়ে চলতি আইএসএলে টানা চার ম্যাচে জয়হীন থাকল তারা।

এমনিতেই চোট-আঘাত মোহনবাগান শিবিরের নিয়মিত সঙ্গী। তার ওপর এদিনের ম্যাচেও সদ্য চোট সারিয়ে ফিরে আসা আনোয়ার আলি ফের হ্যামস্ট্রিং সমস্যা নিয়ে ম্যাচ শুরুর দশ মিনিটের মধ্যে মাঠ ছেড়ে চলে যান। এর পরে ব্রেন্ডান হ্যামিলেরও পেশীর সমস্যা হয়, তিনিও মাঠ ছেড়ে চলে যান। বারবার রক্ষণের খেলোয়াড়দের চোট হওয়া প্রসঙ্গে হাবাস বলেন, ‘আমাদের আজ চারবার রক্ষণের লাইন-আপ বদলাতে হয়েছে। বারবার চোট লেগেছে আমার ডিফেন্ডারদের। তবে আমার দলের মানসিকতা আমাকে মুগ্ধ করেছে। নিজেদের ওপর আস্থা, হার না মানার মানসিকতা— এ গুলো আমার কাছে আজ বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল’। সঙ্গে বলেন, ‘ম্যাচের শুরুতেই আনোয়ার আলির চোট লাগা নিয়ে হাবাসের বক্তব্য ছিল, “আনোয়ার আমাদের সঙ্গে ১৫ দিন ধরে অনুশীলন করেছে। কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু ম্যাচে অনেক তীব্র প্রতিযোগিতা হয়। কিছুটা ভাগ্যের ওপরও নির্ভর করে। তবে পেশাদার ফুটবলে এ সব নিয়েই চলতে হয়। চোট হলে কিছু বলার থাকে না। আমার হাতে পুরো দলই ছিল। এখন দেখতে হবে আমার খেলোয়াড়রা কত দ্রুত ফের চাঙ্গা হয়ে উঠতে পারে’।

লিগ টেবলের শীর্ষে থাকা এফসি গোয়ার সঙ্গে মোহনবাগান এসজি’র ব্যবধান এখনও সাত পয়েন্টের। তবে এই দূরত্ব নিয়ে এখন মাথা ঘামাতে রাজি নন কোচ হাবাস। বলেন, ‘লিগ টেবলে কার সঙ্গে কত পয়েন্টের ফারাক রয়েছে, তা নিয়ে এখন ভাবছিই না। আমাদের এর পর প্রতি ম্যাচে জিততে হবে। এর আগে একাধিক ক্লাব লিগ টেবলের একেবারে নীচ থেকে ওপরে উঠে এসেছে। আমাদেরও সেই জায়গায় আসতে হবে’। মোহনবাগানের পরের ম্যাচ ১০ ফেব্রুয়ারি হায়দরাবাদ এফসির বিরুদ্ধে কলকাতায়। খেলা শুরু সন্ধ্যে ৭.৩০ মিনিটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *