Read Time:2 Minute

যোগী রাজ্যে সংশোধানাগারে বন্দিদের এইডস আক্রান্তের বাড়বাড়ন্তে চাঞ্চল্য

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : ফের একবার উত্তর প্রদেশে যোগী রাজ্যের সংশোধানাগারে বন্দিদের এইচআইভি পজিটিভ রোগীর বাড়বাড়ন্তের ঘটনা সামনে আসায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, সংশোধানাগারে নতুন করে আরও ৩৮ জন বন্দি এইচআইভি পজিটিভ ! বিষয়টি চাউর হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে লখনউয়ের জেলা সংশোধনাগারে ৷ এই সংশোধনাগারে আগেই ২৮ জন এইচআইভি পজিটিভ ছিলেন। তারপর ৩৮ জনও সংক্রমিত হওয়ায় এখন উত্তর প্রদেশের লখনউ জেলা কারাগারে এইচআইভি আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬ জনে। এত বিপুল সংখ্যক বন্দি কিভাবে এইচআইভিতে আক্রান্ত হল এনিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। ২০২২’র নভেম্বর মাসে গাজিয়াবাদের ডাসনা সংশোধনাগারের ১৪০ জন বন্দি এইচআইভি পজিটিভ হয়েছিল ৷

এবিষয়ে মুখে কুলুপ এটেছে সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ। আক্রান্তদের প্রয়োজনীয় ওষুধ দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে । চিকিৎসকের দল আক্রান্ত বন্দিদের পর্যবেক্ষণও করছে। একইসঙ্গে সংক্রমণের কারণগুলি খুঁজে বের করা হচ্ছে । উত্তরপ্রদেশ রাজ্য এইডস কন্ট্রোল সোসাইটি এসটিআই, এইচআইভি, হেপাটাইটিস বি এবং টিবি রোগীদের স্ক্রিনিং করেছে ৷

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তদন্ত বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে । একই বিছানা কিংবা কাপড় ব্যবহার করলেও এইচআইভি সংক্রামিত হয় না। এছাড়াও, একই ঘরে বা ঘরে থাকা এবং একই টয়লেট ও বাথরুম ব্যবহার করলেও এই ভাইরাসে মানুষ আক্রান্ত হয় না। এমনকী, এইচআইভি সংক্রামিত ব্যক্তিদের সঙ্গে স্বাভাবিক যোগাযোগের (যেমন- হাত মেলানো, একসঙ্গে খাওয়া, একই স্ট্যান্ড থেকে জল পান করা) মাধ্যমেও কিংবা মশা কামড়ালেও সংক্রমণ ছড়ায় না ৷ ছড়ায় কেবল অসুরক্ষিত যৌনমিলনের ফলে ৷ সেক্ষেত্রে সংশোধনাগারের মধ্যে এত সংখ্যক বন্দির মধ্যে কীভাবে এইচআইভি সংক্রমিত হল তাই ভাবাচ্ছে কারা প্রশাসনকে ৷ যদিও এটা প্রথমবার নয়, উত্তরপ্রদেশে এমন ঘটনা আগেও ঘটেছে ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *