‘রাজ্য থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত দলের বিদায়লগ্নে সুচনা করে দেওয়া উদ্দেশ্য’:অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি: আইনের আঙিনা ছেড়ে এবার রাজনীতির ময়দানে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিলেন কলকাতা হাই কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি। যোগ দিলেন বিজেপিতে। লোকসভা নির্বাচনে কোন আসন থেকে তিনি লড়াই করবেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। মনে করা হচ্ছে, তমলুক থেকে লড়াই করতে পারেন তিনি।

এদিন সকালে অভিজিতের বাড়িতে পৌঁছে যান বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল ও কাউন্সিলর সজল ঘোষ সহ অন্যান্য বিজেপি নেতা-নেত্রীরা। বেলা ১২ টার কিছু পরে বিধাননগরের বাড়ি থেকে সোজা সল্টলেকে বিজেপি দফতরে পৌঁছন প্রাক্তন বিচারপতি। তাঁকে পুষ্পবৃষ্টি, উলুধ্বনিতে বরণ করে নেওয়া হয়। রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমাদার প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে গেরুয়া উত্তরীয় গলায় পড়িয়ে দেন।

বিজেপিতে যোগদানের পর সাংবাদিক বৈঠকে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “আজ আমি একেবারে নতুন জগতে পা দিলাম এবং সর্বভারতীয় এই দলে মহান নেতা নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহ এরকম লোকেরা আছেন। রাজ্য সভাপতি এবং অন্যান্য পদাধিকারীরা আছেন। তাঁদের এডভাইস এবং সাজেশন প্রতি মূহুর্তে লাগবে কারণ আমি দলের শৃঙ্খলাবদ্ধ সৈনিক হিসেবে কাজ করতে চাই।”

বিজেপিতে যোগ দিয়ে অভিজিতবাবু বলেন, “দল যে দায়িত্বই দিক না কেন তা পালন করতে আমি প্রতিঞ্জাবদ্ধ এবং আমি তা করব। আমাদের প্রথম উদ্দেশ্যে হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ থেকে একটা দুর্নীতিগ্রস্ত দলের এবং একটা দুর্নীতিগ্রস্ত সরকারের বিদায়লগ্নে সুচনা করে দেওয়া এই লোকসভা ভোটে।বিজেপির ক্ষমতায় আসার খুব দরকার, বাংলার প্রয়োজনে। একজন বাঙালি হিসেবে আমি অত্যন্ত কষ্ট পাই যখন দেখি বাংলা ক্রমশই পিছিয়ে পড়ছে।”

দীর্ঘ ২৯ বছর হাই কোর্ট আঙিনায় থাকার পর জীবনের সেকেন্ড ইনিংসে প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সাফ জানিয়ে দিলেন আগামী দিনে দল তাঁকে যে দায়িত্ব দেবে সেই কাজ আমি করছি কি করছি না তাঁর একটা এসেসমেন্ট সকলে করবে। এদিনের যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া কৌস্তভ বাগচী প্রমুখেরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *