ঘৃণা, হিংসার প্রতিবাদে মমতার ‘সংহতি যাত্রা’

Read Time:4 Minute

24 Hrs Tv: নিজস্ব প্রতিনিধি :আজ সোমবার অযোধ্যায় রাম মন্দির উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই সময়ের আশেপাশে বঙ্গে রাস্তায় নেমে প্রতিবাদে পা মেলাবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রামলালার বিগ্রহ প্রতিষ্ঠার দিনে ঘৃণা, হিংসার প্রতিবাদে তৃণমূলের ‘সংহতি যাত্রা’ কর্মসূচি চব্বিশের মহারণের আগে অন্য মাত্রা পেয়েছে।

সরর্যুর পাড়ে রামমন্দির উদ্বোধনে নিমন্ত্রিতদের তালিকায় এবং আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হলেও বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাবেন না। বিভাজনের রাজনীতির বিরুদ্ধে হাজরা মোড় থেকে পার্কসার্কাস পর্যন্ত এই যাত্রার কর্মসূচিতে পুরোভাবে দেখা যাবে মমতাকে।

তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে, সোমবার দুপুর ৩টেয় কালীঘাট মন্দিরে পুজো দেবেন মুখ্যমন্ত্রী। পুজো দিয়ে চলে আসবেন হাজরা মোড়ে। সেখান থেকেই মিছিল শুরু করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাজরা মোড় থেকে প্রথমে বালিগঞ্জ ফাঁড়ি পর্যন্ত মিছিল যাবে। এরপর গড়চায় একটি গুরুদ্বারে যাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। সেখান থেকে ফের এগিয়ে যাবে মিছিল। এরপর বেকবাগান হয়ে পার্ক সার্কাস ময়দানে মিছিল শেষ হবে। এরইমাঝে একটি গির্জা ও একটি মসজিদেও যাবেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এই সংহতি মিছিলে উপস্থিত থাকবেন একাধিক সাংসদ, বিধায়ক ও কলকাতা পুরসভার তৃণমূল কাউন্সিলররা। তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায় বলছেন, ‘মহামিলনের মিছিলের ডাক দিয়েছেন আমাদের নেত্রী। আমরা সারা বাংলায় এই মিছিল করব।’

কলকাতার পাশাপাশি একইসময়ে রাজ্যের বিভিন্ন ব্লক ও মহকুমায় মিছিল করবে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। মিছিলের মূল স্লোগান থাকবে, ‘ধর্ম যার যার উৎসব সবার’। বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষের তোপ, ‘এই সংহতির নামে পশ্চিমবাংলায় সব জায়গায় গান গাওয়া হয়েছে। সেই দেশভাগের পর থেকে সংহতির আয়োজন আগেও ছিল। কেন সংহতি হয়নি? যাঁরা সংহতি মিছিলের নামে সংহতি নষ্ট করেন, তাঁরা আবার রাস্তায় নেমেছেন। কেবল যাঁরা টিএমসির উচ্ছিষ্টভোগী, তাঁদের আমলে করে খাচ্ছে সেরকম কিছু দোকলা লোক যাবে।’ পাল্টা বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্য়ায়। তিনি বলেন, ‘কোনওরকম অস্থিরতা বা চাঞ্চল্য সৃষ্টি করবে এমন কিছু কর্মসূচি দেশে নেওয়া উচিত না যা আমাদের এই সংহতি সম্প্রীতিকে বিবর্ণ করে। পশ্চিমবাংলায় বিজেপি নেতারা এই মুখ্যমন্ত্রী সমন্ধে যত বেশি সমালোচনা করবে তত বেশি ওদের ভোট কমবে।’তৃণমূলের সংহতি মিছিলে সমাজের সব ধর্ম ও সর্বস্তরের মানুষকে আহ্বান জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *