সন্দেশখালিতে ‘ননসেন্স গেম চলছে ভিডিও বার্তা রাজ্যপালের

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : ‘ননসেন্স গেম চলছে, তা বন্ধ করতে গুন্ডারাজের কফিনে পেরেক পুঁততে হবে’৷ সন্দেশখালি ইস্যুতে শনিবার রাতে এক ভিডিয়ো বার্তায় এমনই নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস ৷ গত সোমবারই রাজভবন থেকে মুখ্যসচিব বিপি গোপালিকাকে চিঠি পাঠানো হয়। পরিস্থিতির কোনও বদল না-হওয়ায় ফের বার্তা পাঠানো হয়েছে ৷ তারপরে আবার শনিবার রাতে ভিডিয়ো বার্তা দিলেন রাজ্যপাল বোস। সন্দেশখালি ইস্যুতে বারবার ক্ষোভ প্রকাশ রাজ্যপালের ৷

প্রসঙ্গত, সন্দেশখালিতে শান্তি ফেরানোর দাবিতে নিয়ে শনিবার বিধানসভা থেকে রাজভবনে যান শুভেন্দু অধিকারীরা । বিরোধী দলনেতার নেতৃত্বে ৫০ জনের বেশি বিজেপি বিধায়ক রাজভবনের লনে বিক্ষোভ দেখান । কিন্তু রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস কলকাতায় না থাকায় তাঁর ওএসডি-র হাতের দাবি সনদ তুলে দিলেন শুভেন্দু। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সন্দেশখালিতে শান্তি না ফিরলে আগামী সোমবার রাজভবন চত্বরের ভিতরেই অনির্দিষ্টকালের জন্য ধরনায় বসার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিরোধী দলনেতা ।

শনিবার রাজভবনের দরজার বাইরে ১৪৪ ধারার কপি পোড়ানোর পর শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘আজ সকালে ১৪৪ ধারা জারি ও ইন্টারনেট বন্ধের বিরুদ্ধে জাতীয় মহিলা কমিশন, রাজ্যপাল প্রমুখদের ট্যাগ করেছি এক্স হ্যান্ডেলে । পুলিশ আধিকারিকদের নিয়ে সেখানে তফসিলি জাতি-উপজাতির মহিলাদের ওপর অত্যাচার চলছে । ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে । এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে আটকে রাখা হয় । সিপিএমের কায়দায় সেখানে রাজীব কুমার, মনোজ ভার্মাদের নিয়ে অত্যাচার করা হচ্ছে’।

শান্তি বজায় এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা রাজ্য পুলিশ প্রশাসনের দায়িত্ব ৷ সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস বলেন,’রাজ্য সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে ৷ একদিকে বিধানসভায় অধিবেশন চলছে, অন্যদিকে এরকম অরাজকতার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে ৷ সেখানে পুলিশ প্রশাসন সবকিছুই আছে ৷ তারপরেও দুষ্কৃতীরা আইন হাতে নিয়ে নিচ্ছে ৷ রাজ্য সরকারকে অবশ্যই এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ করে রিপোর্ট পেশ করতে হবে ৷ মাফিয়া রাজ, গুন্ডারাজ চলতে দেওয়া যাবে না ৷ সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে এই গুন্ডারাজ দমন করতে এগিয়ে আসতে হবে’। অন্যদিকে, ১৪৪ ধারা জারি করার পর, সন্দেশখালি থানা এলাকায় বন্ধ করে দেওয়া হল ইন্টারনেট পরিষেবা। এখনও পর্যন্ত ১৪জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতিতেই বিজেপির নেতা-কর্মীদের বাড়িতে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। সবার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জানালেন পুলিশ কর্তা সিদ্ধিনাথ গুপ্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *