সন্দেশখালি ইস্যুতে স্মৃতির নিশানায় ‘ন্যায়যাত্রা’ কর্মসূচি

Read Time:2 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : সন্দেশখালি ইস্যুতে রাহুল গান্ধী এবং কংগ্রেসকে নিশানা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির। ‘যারা ন্যায়যাত্রা করছে তারা চুপ কেন’ এই মন্তব্য করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে মোদী মন্ত্রিসভার সদস্য বলেন, ‘সন্দেশখালিতে মহিলারা মিডিয়ার কাছে তাঁদের অভিজ্ঞতা ব্যক্ত করেছেন ৷ তাঁরা জানিয়েছেন, তৃণমূলের গুন্ডারা প্রতিটি ঘরে ঘুরে ঘুরে মহিলাদের নিশানা করত ৷ মমতার গুন্ডারা প্রতি রাতে মহিলাদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যেত বলেও অভিযোগ করেছেন ওই এলাকার মহিলারা’।

যদিও সোমবার বারাসাত রেঞ্জের ডিআইজি সুমিত কুমার সন্দেশখালি থানায় বসে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘সন্দেশখালিতে ধর্ষণের কোনও লিখিত অভিযোগ আসেনি। লিখিত অভিযোগ করলে কড়া পদক্ষেপের আশ্বাস দেন তিনি’।

অন্যদিকে,সোমবারই রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস সন্দেশখালি পরিদর্শনে যান। হাতের নাগালে পেয়ে শেখ শাহজাহান এবং তাঁর বাহিনীর হাতে লাঞ্জিতা, অত্যাচারিতা মহিলারা নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দেন। ‘ওরা যদি ফিরে আসে’ এমন আশঙ্কার কথা শুনিয়ে ভুক্তভোগী আক্রান্ত মহিলারা রাজ্যপালের হাতে রাখি পরিয়ে তাঁকে বলেন, ‘আপনারা চলে গেলে আমাদের যে অবস্থা হবে তা আরও ভয়ঙ্কর হবে। আমরা এরপর মুখ তুলে তাকাতে পারব না। ১৩ বছর ধরে যা অত্যাচার হচ্ছে, তার থেকেও ভয়ঙ্কর হবে’। নিজেদের সম্ভ্রম খোয়ানোর আতঙ্কে থাকা মহিলাদের এই সহজ সরল স্বীকারোক্তি প্রকাশ্যে আসায় অস্বস্তিতে রাজ্যের শাসক শিবির। তৃণমূলের দাপুটে নেতা শেখ শাহজাহান সহ শিবু হাজরাদের গ্রেফতারির দাবিতে এখনও অনড় স্থানীয় মহিলারা। আর এতকিছুর মাঝে সন্দেশখালি থেকে ফিরে সোজা দিল্লি রওনা দিলেন রাজ্যপাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *