মানুষের গর্জন দিল্লির কানে পৌঁছে দিতে হবে: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি: ১০ মার্চ ব্রিগেডকে সামনে রেখে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এক্স হ্যান্ডেলে সংক্ষিপ্ত সময়ের ভিডিও পোস্ট করেছেন। এই ভিডিও’র ছত্রে ছত্রে কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে রাজ্যের বকেয়া এবং বঞ্চিতদের ন্যায্য পাওনা ফিরিয়ে দেওয়ার শক্তিশালী গর্জনের আহবান করা হয়েছে। বুধবার ভিডিয়ো বার্তায় মমতার এই আহ্বান, ‘‘অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে, যার যার সংস্কৃতিকে রক্ষা করার জন্য আসুন আমরা ব্রিগেডে একটা গর্জন ব্রিগেড তৈরি করি ৷’’ আর সেই গর্জন ব্রিগেডের ময়দান থেকে দিল্লির কানে আওয়াজ পৌঁছে দেওয়ার বার্তা দিয়েছেন দলনেত্রী।

৪ মিনিট ১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিয়োর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পোস্টে লেখা হয়, ‘‘বাংলার ধৈর্য ও সৌজন্যকে তার দুর্বলতা বলে ভুল করা উচিত নয়। ১০ মার্চ বহিরাগত জমিদারদের এটা মনে করিয়ে দিতে হবে। এই রবিবার ব্রিগেড গ্রাউন্ডে জনগর্জন সভা একটি ঐতিহাসিক ঘটনা হবে সেই ভূমিতে, যা সর্বদা তার অধিকারের জন্য লড়াই করেছে। বাংলার নিরাপদ ভবিষ্যতের জন্য জনগণের আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য আমাদের সঙ্গে যোগ দিন। বাংলাই দেখাবে পথ!’’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল দল লাগাতার কেন্দ্রীয় বঞ্চনার বিরুদ্ধে সোচ্চার। এই আবহেই মমতা এদিন বলেন, ‘‘বাংলাকে যেভাবে লাঞ্ছনা করা হচ্ছে ৷ গরিব মানুষকে বঞ্চনা করা হচ্ছে ৷ রাস্তার টাকা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে, বাড়ির টাকা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে, একশো দিনের টাকা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে ৷ স্বাস্থ্য কর্মসূচির টাকা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে ৷’’ এছাড়া আরও অনেক প্রকল্পের টাকা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন ৷এর পরই তিনি বাংলার সংস্কৃতির প্রসঙ্গ টানেন ৷ তৃণমূল নেত্রীর অভিযোগ, বাংলায় বিকৃত সংস্কৃতি তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে ৷ বাংলা হচ্ছে দেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী ৷ বাংলা সব সংস্কৃতিকে সম্মান জানায় ৷ তিনি বলেন, ‘‘আজ অপসংস্কৃতির নাম করে বাংলাকে ভাগ করার চক্রান্ত, বাংলার সংস্কৃতি শেষ করে দেওয়ার যে চক্রান্ত, এই চক্রান্ত আমরা মানতে পারি না ৷’’ তিনি আরও জানান, বাংলা সকলকে আপন করে নেয় ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *