বিজেপি থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়ার প্রস্তাব রাজন্যা হালদারকে

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রথম দফায় ১৯৫ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে বিজেপি। দ্বিতীয় দফার প্রার্থী তালিকা চলতি সপ্তাহে সামনে আসতে পারে, এমনটাই জানা যাচ্ছে। এরই মধ্যে খবর রটেছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেত্রী রাজন্যা হালদারকে লোকসভা নির্বাচনে পদ্ম প্রতীকে লড়ার প্রস্তাব দিয়েছে বিজেপি।

রাজন্যা হালদারকে বিজেপি পদ্ম প্রতীকে লোকসভা নির্বাচন লড়ার প্রস্তাব দিয়েছে। এই খবর সামনবে আসতেই জোর জল্পনা শুরু হয় এবার কি রাজন্যাও বিজেপি শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন। বেশ কয়েকদিন ধরেই এনিয়ে চাপা গুঞ্জন ছিল। মঙ্গলবার রাজন্যা হালদার এই ইস্যুতে মুখ খোলেন। বিজেপি থেকে প্রস্তাব আসার বিষয়টি স্বীকার করে নেন টিএমসিপির নেত্রী। জানা গিয়েছে, চার- পাঁচ দিন আগে রাজন্যার কাছে ফোন আসে। ফোনে কথাবার্তার মাধ্যমেই পদ্ম প্রতীকে লড়ার প্রস্তাব পান তিনি। এও জানা যাচ্ছে এই নিয়ে তাঁকে আলোচনার প্রস্তাবও দেওয়া হয়। কিনতি ওই প্রস্তাব পাওয়া মাত্রই রাজন্যা তা পত্রপাঠ খারিজ করে দেন। তৃণমূল কোনভাবেই ছাড়ছেন না বলে দাবি রাজন্যার। তৃণমূলকে দুর্নীতিগ্রস্ত বলে দাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ করেন এই নেত্রী।

বিজেপির প্রস্তাব এসেছে তা স্বীকার করে নিয়ে রাজন্যার দাবি, “রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। এমপি টিকিট দেওয়ার প্রস্তাব ছিল। কিন্ত আমার উত্তর ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধায়ের হাত ছেঁড়ে কিংবা আর্শীবাদ ছেড়ে কখনই অন্য দলে যোগদান করব না। এখনও আমার এই উত্তর সেটাই থাকবে।” রাজন্যার আরও দাবি ,”বিজেপি থেকে বলা হয়েছিল আমাকে প্রস্তাব দেওয়ার সময় যে তৃণমূল দুর্নীতিতে আকুন্ঠ ডুবে রয়েছে। তাঁতে আমার উত্তর ছিল রাজন্যা হালদার অবশ্যাই অন্যায়ের বিরুদ্ধে বার বার লড়েছে।ড়ার যে দুর্নীতির কথা বলা হচ্চে তা দাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে, এটা বিজেপিই এই জায়গাটা তৈরি করেছে। আমার উত্তর না ছিল, না আছে, না থাকবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *