‘দলের লোকেরাই ফাঁসিয়েছে তাঁকে’ চাঞ্চল্যকর দাবি শাহজাহান শেখের

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি:শুক্রবার সন্দেশখালির বিধায়ক সুকুমার মাহাতো আত্মপক্ষ সমর্থনে জানিয়েছেন, ED-র ওপর হামলার দিনে, ED-র ওপর হামলা হয়েছে এই খবর লোক মারফৎ পেতেই তিনি শাহজাহান শেখকে ফোন করেছিলেন। শাহজাহান শেখকে ফোন করার পিছনে বিধায়কের যুক্তি, তাঁর ফোন করার কারণ ছিল যাতে বড় কোনও অশান্তি না বাঁধে। এরপর এদিনই, বিস্ফোরক দাবি CBI-য়ের হেফাজতে থাকা সন্দেশখালির ‘বাঘ’ শাহজাহান শেখের। ‘দলের লোকেরাই ফাঁসিয়েছে তাঁকে’ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় শাহজাহান সংবাদমাধ্যমের কাছে এমনটাই দাবি করেন।

ক্রিয়া হলে প্রতিক্রিয়া হবে!এদিনCBI-য়ের টিম শাহজাহান শেখের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁকে জোকা ESI হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় শাহজাহান সংবাদমাধ্যমের কাছে এই বিস্ফোরক দাবি সন্দেশখালি কাণ্ডে তদন্ত নয়া মোড় নিল ,এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

ED-র আধিকারিকরা দু’বার রেশন বন্টন দুর্নীতি মামলার তদন্তে শাহজাহানের বাড়িতে যায়। প্রথমবার হামলার মুখে পরে, আক্রান্ত হতে হয়। দ্বিতীয় বার কেন্দ্রীয় এজেন্সির আধিকারিকরা বাড়তি কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে ফের শাহজাহান শেখের বাড়ি যায়। দাপুটে তৃণমূলের এই নেতাকে বাড়িতে না পেয়ে বাড়ি তালা মেরে সিল করে দেয় এবং বাড়ির দেওয়ালে নোটিস সেটে দেয় তলব সংক্রান্ত।

এদিন, ওই সিল করা তালা খুলে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা এজেন্সি CBI আকুঞ্জি পাড়ায় শাহজাহানের বাড়িতে গিয়ে ঢুকে তল্লাশি অভিযান করে। সঙ্গে ছিল ৫ জানুয়ারি শাহজাহান বাহিনীর হাতে নিগৃহীত ED-র আধিকারিকরা। থ্রিডি প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে শাহজাহানের বাড়ির আশপাশ সরেজমিনে তদন্ত করে এজেন্সির আধিকারিকরা। এদিনের তদন্তের লক্ষ্য ছিল শাহজাহান শেখের বাড়ি এবং তাঁর আশপাশ থেকে ৫ জানুয়ারি ঘটে যাওয়া ঘটনার পারিপার্শবিক তথ্য-প্রমান সংগ্রহ করা। সঙ্গে ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। ঘন্টা খানেক তদন্ত সেরে ওই টিম চলে যায় ন্যাজোট থানায়।

থানায় গিয়েও কেন্দ্রীয় এজেন্সির তদন্তকারী আধিকারিকরা ৫ জানুয়ারি শাহজাহান বাহিনী ED-র আধিকারিকদের যে গাড়িগুলোতে হামলা, ভাঙচুর চালিয়েছিল ওই গাড়িগুলো থেকেও নমুনা সংগ্রহ করে। শাহজাহানের বাড়ি এবং ন্যাজোট থানায় এজেন্সির সঙ্গে CFSL টিম ছিল, নমুনা সংগ্রহের জন্যে। এদিকে, CBI হেফাজতে থাকাকালীন শাহজাহানের দাবি, “সব মিথ্যা রটছে। তদন্তে সব কিছু প্রমাণিত হবে।” আগামিকাল শাহজাহান শেখকে বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *