৩৫টি দুর্গাপুজো কমিটিকে আর্থিক অনুদান তুলে দিল কেন্দ্র

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি :প্রতিবছর দুর্গাপুজোর সময় ক্লাবগুলিকে অনুদান দিয়ে থাকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। এনিয়ে বরাবরই রাজ্যের শাসক দলকে আক্রমণ করেছে বিজেপি। আর এবার উলটপূরাণ! রাজ্যের পথে হেঁটেই কেন্দ্রীয় সরকারও বাংলার পুজো কমিটিগুলিকে আর্থিক অনুদান দিল।

রবিবার কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পদ্মশ্রী সম্মান প্রাপক প্রতিমা শিল্পী সনাতন রুদ্র পালের উপস্থিতিতে বাংলার ৩৫টি দুর্গাপুজো কমিটিকে আর্থিক অনুদান তুলে দেয় কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রক। এ নিয়ে পালটা বিজেপিকে আক্রমণ করল তৃণমূল কংগ্রেস। জানা গিয়েছে, এই ৩৫টি ক্লাবের মধ্যে ১০ টি ক্লাবকে ১ লক্ষ টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে। বাকি ২৫টি ক্লাবকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে।

সংস্থার পক্ষ থেকে সম্পাদক প্রীতম সরকার জানান, যেহেতু দুর্গাপুজো হেরিটেজ তকমা পেয়েছে, তাছাড়া দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে বিপুল অর্থনীতি জড়িয়ে রয়েছে। সেই সমস্ত কথা মাথায় রেখে পুজো কমিটিগুলিকে অনুপ্রাণিত করার জন্য এই অর্থ প্রদান করা হয়েছে। পুজো কমিটির তরফে একজন কেন্দ্রীয় সরকারের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তবে এটিকে অনুদান বলতে চাইছেন না তারা। তাদের বক্তব্য, এটি হল এক ধরনের পুরস্কার। কিন্তু কিসের ভিত্তিতে এই অনুদান? জানা গিয়েছে, এর জন্য নির্দিষ্ট শ্রেণিতে ফর্ম ফিলাপ করতে হয়েছিল তাদের।

এই ইস্যুতে কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। বলেন, ‘আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যা ভাবেন গোটা ভারতবর্ষকে উন্নয়নের জন্য সেই পথে হাঁটতে হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন পুজো কমিটির পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন তখন বিজেপি রব তুলেছিল। তারা প্রশ্ন তুলেছিল কেন টাকা দেওয়া হবে? আর আজকে বিজেপি সেটা নকল করছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একের পর এক সামাজিক পরিষেবার ডালি নিয়ে আসছেন আর সেগুলি যারা নকল করেন সেই নির্লজ্জ, বেহায়া বিজেপি নেতাদের আগে ক্ষমা চাওয়া উচিত।’যদিও নকল করার অভিযোগ মানতে রাজি নন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। দুর্গাপুজোকে হেরিটেজ ঘোষণা পর থেকেই এই উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্র। যাতে দুর্গাপুজো আরও ভালোভাবে হয় তার জন্য এই উদ্যোগ। এখানে নকলের কিছু নেই, এমনটাই দাবি সুকান্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *