Read Time:3 Minute

কৃষ্ণের সঙ্গে এবার নরেন্দ্র মোদীর তুলনা রাজ্যপালের

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি : কৃষ্ণের সঙ্গে এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তুলনা টানলেন রাজ্যপালের সিভি আনন্দ বোসের। বলেন, ‘শ্রীকৃষ্ণ ছিলেন বলে মহাভারতে অর্জুনের রথ কোনওভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। একইরকমভাবে নরেন্দ্র মোদি আছেন বলে ভারতবর্ষের মতো রথও অক্ষত রয়েছে’।
পাশাপাশি অযোধ্য়ায় রামমন্দির নির্মাণের জন্যও মোদী প্রশংসা শোনা গেল তাঁর মুখে। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

শনিবার ভবানীপুরে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন রাজ্যপাল বোস। সেখানেই মোদীকে কৃষ্ণের সঙ্গে তুলনা করে বলেন, ‘শ্রীকৃষ্ণ ছিলেন বলে মহাভরতে অর্জুনের রথ কোনও ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। একই রকম ভাবে নরেন্দ্র মোদি আছেন বলে ভারতবর্ষের মতো রথও অক্ষত রয়েছে। অযোধ্যায় রামমন্দির প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর, শিশুদের মুখেও ভারতের নেতৃত্বদানের ক্ষমতা মুখে মুখে ফিরছে’।

মহাভারতের সঙ্গে তুলনা টেনে রাজ্যপালকে বলতে শোনা যায়, ‘ভগবত গীতায় পড়েছি, শ্রীকৃষ্ণ অর্জুনের দিব্যীয় রথ থেকে নেমে মাটিতে পা রাখা মাত্রই, রথটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তাতে আশ্চর্য হয়ে যান অর্জুন। কী হল বুঝতে না পেরে কৃষ্ণকে প্রশ্ন করেন তিনি। তাতে হেসে কৃষ্ণ জানান, তিনি ওই রথে বসেছিলেন বলেই সেটি এত ক্ষণ পোড়েনি। আজ ভারত নামক যে রথ রয়েছে, তাতে সওয়ার রয়েছেন নরেন্দ্র-কৃষ্ণ। তিনি আছেন বলেই ভারত খান খান হয়ে যায়নি’।

নরেন্দ্র মোদীকে কৃষ্ণের সঙ্গে তুলনা প্রসঙ্গে পাল্টা সুর চড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যসভায় তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন বলেন, ‘এই রাজ্যপালের মুখোশ অনেক আগেই খুলে গিয়েছে। পূর্বসূরি জগদীপ ধনকড়কে প্রতি মুহূর্তে অনুসরণ করছেন। বিজেপি’র তল্পিবাহক হয়ে রাজ্যপাল থেকে উপরাষ্ট্রপতি হয়েছেন ধনকড়। তাই ইনিও এখানে বিজেপি’র মুখপাত্র হিসেবে কাজ করছেন, রাজভবনটিকে বিজেপি’র সদর দফতরে পরিণত করছেন। রাজ্য সরকারের পয়সাতেই সমান্তরাল সরকার চালিয়ে নির্বাচিত সরকারকে বিব্রত করার চেষ্টা করছেন উনি’।

যদিও রাজ্য বিজেপি’র মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য তৃণমূলের অভিযোগ উরিয়ে পাল্টা বলেন, ‘তরুণ প্রজন্মের চোখে দেখা নতুন ভারতের নেতা নরেন্দ্র মোদী। রাজ্যপাল তুলনা করতেই পারেন। এতে সমালোচনার কী আছে? মুখ্যমন্ত্রী ওঁর হাতেখড়ি দিয়েছিলেন। তিনি এখন সব শিখেছেন, তৃণমূল, সিপিএম, সকলকে চিনেছেন। এটা কোনও অসাংবিধানিক বিষয় নয়’। বিতর্কের মাঝে এখনও রাজভবন থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *