জ্ঞানবাপীর পর এবার মক্কা! ‘মক্কেশ্বর মহাদেবের মন্দির রয়েছে সেখানে’ দাবি পুরীর শংকরাচার্যের

Read Time:4 Minute

২৪ আওয়ার্স টিভি ওয়েব ডেস্ক :মন্দির মসজিদ বিতর্ক নিয়ে সরগরম দেশীয় রাজনীতি। এবার সেই বিতর্কের উত্তাপ পেরিয়ে গেল দেশের সীমানাও। জ্ঞানবাপী নিয়ে বিতর্কের রেশ মিটতে না মিটতেই এ বার সৌদি আরবের মক্কায় শিবমন্দির আছে বলে উঠে গেল দাবি। এই বিষয় নিয়ে আলোচনার দাবিও জানালেন পুরীর শঙ্করাচার্য নিশ্চলানন্দ। রবিবার রাজস্থানে হিন্দু রাষ্ট্র নিয়ে একটি আলোচনাসভায় এই দাবি তোলেন তিনি। অবশ্য এই দাবি যে এই প্রথম উঠল এমন কিন্তু নয়। নিশ্চলানন্দ নিজেই এর আগে এমন দাবি তুলেছেন বলে জানা যাচ্ছে। কিন্তু জ্ঞানবাপী নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই নিশ্চলানন্দের নতুন করে তোলা এই দাবি নিয়ে রীতিমতো তর্জা শুরু হয়ে গিয়েছে দেশ জুড়ে।

রবিবার রাজস্থানে আয়োজিত হয় হিন্দু রাষ্ট্র নিয়ে আলোচনাসভা। সেখানে আমন্ত্রিত ছিলেন পুরীর শঙ্করাচার্য নিশ্চলানন্দ। সেখানে তিনি বলেন, ‘কেবল জ্ঞানবাপী নিয়ে আলোচনা করলে হবে না। এ বার আমাদের মক্কা নিয়েও কথা বলা উচিত। সেখানে মক্কেশ্বর মহাদেবের মন্দির রয়েছে।’ এখানেই থেমে যাননি নিশ্চলানন্দ। তিনি দাবি করেন, ভারত নিজেকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ বলে ঘোষণা করার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বের আরও অন্তত ১৫টি দেশ নিজেদের হিন্দু রাষ্ট্র ঘোষণা করবে। কোন কোন সেই দেশগুলি? তার নামও জানিয়েছেন তিনি। পুরীর শঙ্করাচার্য নিশ্চলানন্দের দাবি করেন— নেপাল, মরিশাস নিজেদের ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ বলে ঘোষণায় রাজি।

সৌদি আরবের মক্কা আদতে মুসলিমদের সর্বশ্রেষ্ঠ তীর্থক্ষেত্র। প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ ধর্মপ্রাণ মুসলিম মক্কাদর্শন করেন। সেখানে মহাদেবের মন্দির আছে বলে দাবি তুলে পুরীর শঙ্করাচার্য খবরের শিরোনামে আসতে চাইছেন বলে দাবি করেন অনেকে। অনেকে মনে করছেন, জ্ঞানবাপী নিয়ে বিতর্কের ঢেউকে একটু উস্কে দিতে এই বেফাঁস মন্তব্য পুরীর শঙ্করাচার্য নিশ্চলানন্দের। তবে তাঁর এই দাবি নিয়ে যে দেশ জুড়ে আলোচনা শুরু হয়েছে, তা স্বীকার করেছেন সকলেই।

মাস কয়েক আগে আগরার তাজমহলকে শিবের আলয় ‘তেজো মহালয়’ বলে দাবি তুলে সেখানে অভিযান করেন হিন্দু সম্প্রদায়ের একদল মানুষ। জ্ঞানবাপী বিতর্কের পরিস্থিতিতে সেটি আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে বলেই মনে করছেন অনেকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লোকসভা কেন্দ্র বারাণসীর জ্ঞানবাপী মসজিদে শিবলিঙ্গ আছে বলে দাবি করে শুরু হয় চরম বিতর্ক। মুসলিম পক্ষ দাবি করে, ‘শিবলিঙ্গ’ বলে যা দাবি করা হচ্ছে, তা আসলে একটি ফোয়ারার ভাঙা অংশ। বিতর্কের আগুন পৌঁছয় আদালতে। কিছু দিন আগেই বারাণসী জেলা আদালত মসজিদের ভিতরে ‘কার্বন ডেটিং’-এর আবেদন খারিজ করে দিয়েছে। এই রায়ে বেশ খানিকটা ধাক্কা খেয়েছে হিন্দু পক্ষ। এর মধ্যেই মক্কায় মক্কেশ্বর মহাদেবের মন্দির আছে বলে দাবি তুলে বিতর্ক আরও বাড়ালেন পুরীর শঙ্করাচার্য নিশ্চলানন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *