কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে বিরোধীদের শেষ করে দেওয়ার চেষ্টা চলেছ: সৌগত রায়

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv:নিজস্ব প্রতিনিধি: টানা তিনদিন ধরে আয়কর বিভাগের তল্লাশি চলছে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের ভাই স্বরূপ বিশ্বাসের বাড়িতে। এর মধ্যে আবার ইডি হানা দিয়েছে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহার বাড়িতে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে। আর গত বৃহস্পতিবার রাতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আপ সুপ্রিমো আবাওগারি দুর্নীতি মামলায় ইডি হেফাজতে। গোটা দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় এজেন্সির হানাদারিতে কেঁপে উঠেছে বিরোধী রাজনীতি। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল সাংসদ তথা দমদম লোকসভার প্রার্থী সৌগত রায়ের অভিযোগ, বিজেপি ভোট বৈতরণী পার করতে ইডি, সিবিআই ও আইটির মতো কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলিকে ব্যবহার করছে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রেফতারের পর কড়া প্রতিক্রিয়া সামনে এসেছে তৃণমূল থেকে।”রাজনৈতিক দলগুলির প্রধান, মুখ্যমন্ত্রী, নির্বাচনী এজেন্টদের এইভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে এবং গ্রেফতার করা হচ্ছে। আমাদের গণতন্ত্রের কী ভবিষ্যৎ? গণতন্ত্রকে রক্ষা করা আমাদের সকলের কর্তব্য”, নিজের এক্স হ্যান্ডেলে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গ্রেফতারি নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ডেরেক ও ব্রায়েন। আজ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও কেজরিওয়ালের গ্রেফতারির কড়া নিন্দা করেছেন। তাঁদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এ বার কেজরিওয়াল নিয়ে সুর চাড়ালেন সৌগত রায়। বলেন, “আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। গত পাঁচ বছর নিরন্তর ইডি এবং সিবিআইয়ের মতো তদন্তকারী সংস্থা দিয়ে বিরোধীদের শেষ করে দেওয়ার চেষ্টা চলেছে। আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। আমাদের দল থেকে ইতিমধ্যেই এর নিন্দা করা হয়েছে।”

এ দিন সৌগত রায় বলেন, “বিজেপি আসলে ইডি-সিবিআইয়ের মাধ্যমে ভোট করতে চাইছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে মোট ১২ বার ডেকে পাঠানো হয়েছে। অবশেষে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে ইডিকে ওকে ডাকা থেকে আটকেছে। সুতরাং এ তো চলছেই।” কেজরির গ্রেফতারি নিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তাঁর এক্স হ্যান্ডেলে লিখেছেন, “নির্বাচিত বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীদের ইচ্ছাকৃতভাবে নিশানা করা হচ্ছে এবং গ্রেফতার করা হচ্ছে । যেভাবে ইডি এবং সিবিআইয়ের তদন্তের আওতায় থাকা ব্যক্তিদের বিজেপির সঙ্গে যুক্ত থাকলে দায়মুক্তভাবে অসৎ আচরণ চালিয়ে যাওয়ার ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে সেটা গণতন্ত্রের উপর নির্মম আঘাত।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *