ঝাড়খণ্ডের বামেদের প্রার্থী ‘প্যাড উওম্যান’

Read Time:2 Minute

অনুষ্কা মণ্ডলঃ ঝাড়গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রে সোনামণি টুডুকে প্রার্থী করেছে বামফ্রন্ট। সোনামণির হাত ধরেই কি জঙ্গলমহলের লালদুর্গ ফিরে পাবে বামেরা? এর আগে গ্রামসভার ভোট বা পঞ্চায়েত নির্বাচন, যতবারই লড়াই করেছেন ততবারই জয়যুক্ত হয়েছেন সোনামণি। এবারও কি সেই রেকর্ড ধরে রাখতে পারবেন ঝাড়গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রের সিপিএম-এর প্রার্থী সোনামণি।

তাঁকে বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমান্তের অনেক গ্রাম ‘প্যাড উওম্যান’ বলে জানে। ইউনিসেফের হয়ে আদিবাসী গ্রামে ঘুরে ঘুরে ঋতুস্রাব নিয়ে কিশোরী থেকে সাধারণ মহিলাদের সচেতন করেছেন তিনি। শিখিয়েছেন স্যানিটারি ন্যাপকিনের ব্যবহার। ভেঙেছেন ‘ট্যাবু’। তিনি ঝাড়খণ্ডের কন্যা। তিনি বাংলার বধূ। সোনামণি মুর্মু (টুডু)। তিনিই লোকসভা ভোটে ঝাড়গ্রাম কেন্দ্রে সিপিএমের প্রার্থী। যে ঝাড়গ্রাম এক সময় ছিল ‘লালদুর্গ’। যে ঝাড়গ্রাম তার পরে হয়েছিল ‘সবুজ’। তার পর গত লোকসভায় রং বদলে ‘গেরুয়া’।

পড়াশোনার সময় থেকেই মানুষের সমস্যায় পাশে দাঁড়ানোর অভ্যাস সোনামণির। পড়াশোনার পাশাপাশি একটি রেডিও সংস্থায় কাজের কারণে বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে গিয়ে মানুষের সুখ-দুঃখের কথা শুনেছেন। জানার চেষ্টা করেছেন তাদের সমস্যার কথা। আবার স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেই সমস্যার সমাধানও করেছেন । ২৯ বছর বয়সী সোনামণি টুডু পুরুলিয়া জেলার বান্দোয়ান থানার অন্তর্গত কুচিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের আসনপানি গ্রামের বাসিন্দা। ঝাড়খন্ড রাজ্যের জামশেদপুর ব্লকের দলদলি গ্রাম পঞ্চায়েতের কডিহা গ্রামে তাঁর জন্ম। সেখানেই পড়াশোনা করে বেড়ে ওঠা। ঘাটশিলা বিডিএসএল মহিলা কলেজ থেকে বিএ পাস করার পর জামশেদপুর কো-অপারেটিভ কলেজ থেকে ২০১৬ সালে সাইকোজলিতে মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *