আস্থা স্পেশাল ট্রেনে রামলালার দর্শনের ব্যবস্থা করা হয়েছে: দিলীপ ঘোষ

Read Time:3 Minute

24 Hrs Tv: নিজস্ব প্রতিনিধি: সরর্যূ নদীর তীরে সোমবার, ২২ জানুয়ারি প্রাণ প্রতিষ্ঠা করা হবে রামলালার। অযোধ্যায় রাম মন্দির উদ্বোধনের আগে শনিবার থেকেই সাধারণের জন্য বন্ধ করা হল রামলালার দর্শন। রাম জন্মভূমি পথে লোহার ব্যারিকেড বসানো হয়েছে। উদ্বোধনের পর মঙ্গল অথবা বুধবার থেকে সাধারণ মানুষ রামলালাকে দর্শন করতে পারবেন।

ইতিমধ্যে অয্যোধ্যা শহরে জনসমাগম হয়েছে। জন- শৃঙ্খলা রক্ষার জন্যে বিশাল সংখ্যক পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করেছে উত্তরপ্রদেশ রাজ্য পুলিশ-প্রশাসন। উদ্বোধনের পর রামলার দর্শনের জন্যে ভিড় আরও বাড়বে এমনতাই মনে করা হচ্ছে। এনিয়ে শনিবার সকালে প্রাতঃভ্রমণের ফাঁকে বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ জানান, সারা দেশের মানুষ যেতে চাইছে। কোটি কোটি মানুষ। ছোট্ট শহর। সবাই একসঙ্গে গেলে ব্যবস্থা করা অসম্ভব। দুর্ঘটনা ঘটে যাবে। তাই বিভিন্ন রাজ্যকে আলাদা আলাদা সময় দেওয়া হয়েছে ২২ তারিখের পর। বিজেপি সাংসদের কথায়, বিভিন্ন রাজ্য থেকে আস্থা স্পেশাল ট্রেন চলবে। ২৯ জানুয়ারি হাওড়া থেকে প্রথম আস্থা স্পেশাল ছাড়বে। ৫ টা স্পেশাল ট্রেন। তারা ১৬০০ টাকা দিয়ে টিকিট কাটবেন। ট্রেনে ওঠা থেকে বাড়ি ফেরার পর্যন্ত দায়িত্ব কেন্দ্র নেবে। ওখানে স্বেচ্ছাসেবক থাকবেন। বাংলা ভাষায় তাঁরা কথা বলবেন। সাহায্য করবেন। গোটা দেশকে আলাদা ৪ টি জোনে ভাগ করে আলাদা রঙের আই কার্ড দেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানের আগেই কড়া নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে অযোধ্যাকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগামী ২২ জানুয়ারি, সোমবার মন্দিরের উদ্বোধন করবেন। রাম মন্দির উদ্বোধন নিয়ে অপেক্ষার প্রহণ গুণছে দেশবাসী। প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা, যানজট আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্যে উত্তরপ্রদেশ রাজ্য পুলিশ বিশাল সংখ্যক বাহিনী মোতায়েন করেছে। সঙ্গে সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স এবং এক কোম্পানি ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড মোতায়েন হয়েছে। যেহেতু আজ থেকে সাধারণের জন্যে রামলালার বিগ্রহ দর্শন বন্ধ , তাই প্রশাসন মন্দিরের প্রায় দেড় কিলোমিটার আগে থেকেই আগত পূর্ণ্যার্থীদের মন্দিরেযাওয়ার পথে ব্যারিকেড বসিয়ে দিয়েছে জন-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *